ল্যাপটপের বিভিন্ন ক্যাটাগরির মধ্যে গেমিং ল্যাপটপের ক্ষেত্রে ইউজারদের নানা স্পেসিফিকেশনের চাহিদা থাকে একদম ভিন্ন। এক্ষেত্রে দেখতে হবে আকর্ষনীয় একইসাথে শক্তিশালী। ভালো গেমিং ল্যাপটপগুলো তাদের ডেস্কটপ কাউন্টারপার্টের চেয়ে আকারে ছোট হতে পারে কিন্তু সেগুলো লেটেস্ট মোবাইল ভার্সনের কাটিং এজ সিপিইউ এবং জিপিইউ দিয়ে ঠাসা, যেমন এনভিডিয়া টিউরিং গ্রাফিক্স কার্ড, ইনটেলের কফি লেক রিফ্রেশ প্রসেসর।

এছাড়াও এসকল ল্যাপটপগুলোতে ম্যাক্সিমাম পারফরমেন্সের জন্য স্পিডি এসএসডি ইউটিলাইজ করা হয়ে থাকে। পাঁচটি ভিন্ন রকমের গেমিং ল্যাপটপ নিয়ে সাজানো এই লেখাটি।


Image Credit: hothardware.com

১. AlienWare Area 51m : বেস্ট গেমিং ল্যাপটপ

ল্যাপটপটির নাম শুনলে মনে হয় যেন স্পেসশিপ। ল্যাপটপটি বাস্তবে ঠিক তেমনই। ডেলের এলিয়েনওয়ার ইতিমধ্যে গেমারদের মধ্যে অনেক সাড়া ফেলে দিয়েছে। সে সাথে এ বছরের এরিয়া ৫১ এম মডেলটি যেন ব্যবহারকারীর সকল চাহিদাকে মুড়িয়ে তৈরি একটি ল্যাপটপ।

রিয়ার ভেন্টের কালারের সাথে কীবোর্ডের আরজিবি লাইটিং ব্যবহারকারীর গেমিং অভিজ্ঞতাকে বুস্ট করবে কয়েক গুনে। এনভিডিয়া আরটিএক্স গ্রাফিক্স এবং জি সিংক টেকনলোজির সাথে লভ্য এই ল্যাপটপটিতে আপগ্রেডেবিলিটির সুযোগও রেখেছে ডেল। সাড়ে তিন লক্ষ টাকার এই ল্যাপটপটি সকল লেটেস্ট গেমের পরীক্ষায় উতরে গেছে সহজেই।

স্পেসিফিকেশন:

  • Processor: Intel Core i9-9900 (8 core, 16MB Cache, up to 5.0 GHz with Turbo Boost)
  • Ram: 32 GB, (2*16GB), DDR4, 2666MHz Ram
  • Storage: 512GB PCle M.2 SSD + 1TB (+8GB SSHD) Hybrid Drive
  • Graphics: NVIDIA GeForce RTX 2080 8GB GDDR6 (OC Ready)
  • Display: 17.3” FHD (1920*1080) 144Hz,IPS,NVIDIA G-SYNC,Eyesafe Display Tech

মুল্য: ৩ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা।

লুক,পারফরমেন্স, কুলিং সিস্টেম, ডিসপ্লে সব মিলিয়ে ল্যাপটপটিকে বলা হচ্ছে ‘আ ল্যাপটপ ফ্রম দা ফিউচার’।


Image Credit: techspot.com

২. MSI GS65 Stealth: নান্দনিক গেমিং ল্যাপটপ

MSI গেমিং ল্যাপটপের বাজারে প্রবেশ করেছে অনেক আগে। ব্ল্যাক-গোল্ডেনের কম্বিনেশনের এই ল্যাপটপটি পেয়েছে এলিট স্ট্যাটাস। ন্যারো ব্যাজেলের এই ল্যাপটপের ৮২% স্ক্রিন টু বডি রেসিও ভিশন ম্যাক্সিমাইজ করে এবং গেমিং স্ট্রিমিংকেও করে উপভোগ্য।

যারা গেমিং ল্যাপটপ বলতেই মনে করে থাকে ভারী, মোটা ল্যাপটপ, তাদের ধারণাকে ভুল প্রমানিত করে স্লিক ডিজাইনের ১.৮ কেজির এই ল্যাপটপটি। একই কনফিগারেশনে বাজারে অন্যান্য ল্যাপটপের দাম আরো বেশি মনে হতে পারে। ফাস্ট ডিসপ্লে, ইফেকটিভ থার্মাল ম্যানেজমেন্ট, ইম্প্রেসিভ এনভিডিয়া ম্যাক্স কিউ গ্রাফিক্সের এই ল্যাপটপটি হতে পারে একটি স্মার্ট চয়েজ।

স্পেসিফিকেশন:

  • Processor: 8th Gen Intel Core i7-8750H
  • Ram: 16GB DDR4 2666MHz
  • Storage: 512GB M.2 NVMe SSD
  • Graphics: NVIDIA GeForce GTX 1060 with 6GB GDDR5
  • Display: 15.6” FHD( 1920*1080),144Hz

মূল্য: ১ লক্ষ ৮০ হাজার টাকা।

Image Credit: newegg.ca

৩. Lenovo Legion Y740: একসেসেবল গেমিং ল্যাপটপ

লেনেভো লিজিয়নের এই মডেলটি গেমিং ল্যাপটপের মধ্যে অন্যতম এক শক্তিশালী প্রতিদ্বন্দ্বী। ব্লেজিং ফাস্ট পারফরমেন্স, সুন্দর, ইউনিক ডিজাইনের সাথে ব্রাইট ১০৮০পি ডিসপ্লে, পাওয়ারফুল ইনটারনাল কমপোনেন্ট, ন্যারো ব্যাজেলস সবকিছু বিবচনায় লেনেভো একটি অত্যাধুনিক কম্পিউটার তৈরি করেছে।

এনভিডিয়া জি সিংক এনাবল থাকার কারণে ল্যাপটপটি আকর্ষণীয় ভিউয়িং ইফেক্টের সাথে ফ্রেমিং রেট দেয়, যা গেমারদের পছন্দের তালিকায় শীর্ষে থাকে। পছন্দের গেমিং টাইটেল অত্যাধুনিক কনট্রাস্ট, ব্রাইটনেস, কালারের সাথে চোখে ফুটে উঠে। এর স্মুথ লাইফলাইক ডিসপ্লে গেমিং এবং মিডিয়া উভয় উদ্দেশ্যই অনেক ভালোভাবে পূরণ করে। আরজিবি সাপোর্টেড কীবোর্ড বাড়িয়ে দেয় সৌন্দর্যটাও। তবে ওয়েবক্যামের প্লেসমেন্টটা ন্যারো ব্যাজেলসের কারণে স্থান পেয়েছে স্ক্রিনের নীচের অংশে।

স্পেসিফিকেশন:

  • Processor: 8th Gen Intel core i7-8750H 6 Core Processor (2.20GHz up to 4.10GHz with Turbo Boost, 9 MB Cache)
  • Memory: 16 GB DDR4 266MHz SDRAM
  • Storage: 512 GB PCle NVMe SSD
  • Graphics: NVIDIA GeForce RTX 2060 6 GB
  • Display: 15.6’’ FHD (1920 * 1080), 72% color gamut, NVIDIA G-SYNC, 144 Hz, 300 nits, software enabled Dolby Vision HDR

মূল্য: ১ লক্ষ ৫০ হাজার থেকে ৬৫ হাজার টাকা।

Image Credit: Acer.com

৪. Acer Predator Helios 300 : বেস্ট এফোর্ডেবল গেমিং ল্যাপটপ

এসার তাদের গেমিং ল্যাপটপে বাজেটের দিকটা খেয়াল রেখেই ল্যাপটপ বাজারে আনে বলে মনে হয়। কেননা একের পর এক নানা সিরিজে বৈচিত্র্য নিয়ে এই কোম্পানি উৎপাদন করছে দুর্দান্ত সব ল্যাপটপ। এনভিডিয়া আরটিএক্স গ্রাফিক্স কার্ডের সাথে ইনটিগ্রেটেড এসএসডি ল্যাপটপকে করবে একইসাথে পাওয়ারফুল এবং ফাস্ট।

স্পেসিফিকেশন:

  • Processor: Intel Core i5-9300H processor (2.4 GHz with Turbo Boost up to 4.1 GHz)
  • Ram: 8GB DDR4 RAM (8GB x 1, upgradable to 16GB DDR4 x 2)
  • Storage: 512GB PCIe NVMe SSD   
  • Graphics: NVIDIA GeForce RTX 2060 with 6 GB of dedicated GDDR6
  • Display: 15.6″ IPS technology, Full HD 1920 x 1080, high-brightness (300 nits) supporting 144 Hz, 3 ms Overdrive

মূল্য: ১ লক্ষ ২৪ হাজার টাকা।

এছাড়া, যাদের গেমিং এর ইচ্ছা,আবার বাজেটের দিকে সাশ্রয়ী দরকার তাদের জন্য রয়েছে এসারের Acer Nitro 5 ল্যাপটপটি।


Image Credit: Asus.com

৫. Asus ROG Strix GL503GE (Scar Edition): স্টাইলিশ গেমিং ল্যাপটপ

আসুসের হিরো সিরিজের পর রগের স্কার এডিশনটি বেশ জনপ্রিয় হয়েছে। রগের গেমিং ল্যাপটপ নানারকম স্পেসিফিকেশনের সাথে বিভিন্ন রেঞ্জে উপস্থিত রয়েছে বাজারে। তার মধ্যে এই মডেলটি রগ স্ট্রিক্সের সিগনেচার লুকের সাথে হেক্সা কোর প্রসেসর, এনভিডিয়া ১০৫০ টি আই গ্রাফিক্স কার্ড গেমিং পারফরমেন্সকেও ইনহ্যান্স করেছে। ল্যাপটপটিতে ফুল এইচডি গেমিং এক্সপেরিয়েন্স আসলেই তুলনাহীন। আর আসুসের ল্যাপটপ সবসময়ই টেকসই হয়ে থাকে। এটিও সেক্ষেত্রে ব্যতিক্রম নয়।

স্পেসিফিকেশন:

  • Processor: Intel Core i7-8750H (up to 4.10 GHz 9MB Cache, 6 Core)
  • Ram: 16 GB DDR4 2666MHz SDRAM
  • Storage: 1TB HDD+128GB SSD
  • Graphics: NVIDIA GeForce GTX 1050 Ti 4GB GDDR5
  • Display: 15.6-inch Full HD (1920×1080)

মূল্য: ১ লক্ষ টাকা।

ফিচার ছবি- wpppc.blogspot.com

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *