ল্যাপটপ হলো বহনযোগ্য ব্যক্তিগত কম্পিউটার। ব্যবহারকারীদের জন্য জনপ্রিয় ও প্রয়োজনীয় এক যন্ত্র এটি। স্মার্টফোনের রাজত্বে ল্যাপটপ এখনো তার প্রতাপ ঠিকই ধরে রেখেছে। সেজন্যই বাজারে সাশ্রয়ী মূল্যের ল্যাপটপগুলোর চাহিদা কম নয়।

প্রাত্যহিক জীবনের বিভিন্ন প্রয়োজনে বাজেট ল্যাপটপ ব্যবহার করে দারুণভাবে কাজ চালিয়ে নেওয়া যায়। তাই অফিস কিংবা পড়ালেখার কাজে বাজেট ল্যাপটপের জুড়ি নেই। এইচডি ডিসপ্লে, সহজে ব্যবহারযোগ্য হ্যান্ডি কিবোর্ড, লং লাস্টিং ব্যাটারি লাইফ, স্টোরেজ আর মাঝারি শক্তির প্রোসেসর ও র‍্যামে তৈরি হয় বাজেট ল্যাপটপের রেসিপি। এরকমই ৫টি সাশ্রয়ী মূল্যের ল্যাপটপ নিয়ে সাজানো হয়েছে এ লেখাটি।

১) Asus Vivobook X510UA (8th Gen Core i3):

যাদের ল্যাপটপের ক্ষেত্রে একটু বড় ডিসপ্লে পছন্দ, তাদের জন্য এই ল্যাপটপটি অনেকটাই যুতসই। ল্যাপটপটিতে রয়েছে ফুল এইচডি ১৫.৬’’ ইঞ্চি ডিসপ্লে। সাম্প্রতিক সময়ের চাহিদার কথা মাথায় রেখে এতে রয়েছে টাইপ সি USB পোর্ট। সুপার ব্যাটারি এবং ফাস্ট চার্জিং টেকনোলজি ল্যাপটপটিকে দিচ্ছে লং লাস্টিং ব্যাটারি লাইফ, সাথে পাওয়ার ব্যাকআপ। গ্রাফিক্সের জন্য আছে ইন্টিগ্রেটেড এইচডি গ্রাফিক্স। হাই গ্লসি লুকের কারনে ল্যাপটপটির আউটলুকও বেশ সুন্দর। ভ্যারিয়েন্ট হিসেবে রয়েছে গোল্ডেন সেড।  

Image Source: www.startech.com.bd

এক নজরে Asus Vivobook X510UA-এর স্পেসিফিকেশন:

  • Intel core i3-8130U Processor (2.20 GHz up to 3.40 GHz)
  • 4 GB DDR4 Ram
  • 1TB HDD
  • 15.6’’ FHD (1920*1080)
  • বাজার মূল্য: ৪১,০০০~৪৩,০০০ টাকা।

২) HP 14-BS732TU (7th Gen Core i3):

ছোট কমপ্যাক্ট আকারের ল্যাপটপের ক্ষেত্রে ১৪’’ খুবই সুবিধাজনক একটি সাইজ। কেননা এতে সহজেই ল্যাপটপটি বহন করা যায়। এইচপি এর  ফাস্ট চার্জিং টেকনোলজি থাকার কারণে মাত্র ১৫ মিনিটেই প্রায় ৪৫% চার্জ পাওয়া সম্ভব হবে এই ল্যাপটপটিতে। চার্জের সুযোগ ছাড়া বাইরে বেশিক্ষণ কাজের ক্ষেত্রে এ ল্যাপটপটি এগিয়ে থাকবে। সাধারণ ব্যবহারে ল্যাপটপটি চলবে প্রায় সাড়ে ৩ ঘন্টা।

Image Source: www.hpexclusive.com.bd

এক নজরে HP 14-BS732TU-এর স্পেসিফিকেশন:

  • Intel core i3-7020U (2GHz, 3M cache)
  • 4 GB DDR4-2133 SDRAM
  • 1TB HDD
  • Intel Graphics 620
  • 14’’ diagonal display (1366*768)

বাজার মূল্য: ৩৯,০০০~৪০,০০০ টাকা।

৩) Acer Aspire A315-51 (7th Gen Core i3):

আসুস, এইচপি বাদে অন্য কোন ব্র্যান্ডের প্রায় কাছাকাছি স্পেসিফিকেশনের ল্যাপটপের মধ্যে রয়েছে অ্যাসার ব্র্যান্ডের এই ল্যাপটপটি। মূল্য বেশ সাশ্রয়ী হলেও থাকছে ১৫.৬’’ ডিসপ্লে। এছাড়াও রয়েছে ৪ জিবি র‍্যাম এবং ১ টিবি এইচডিডি স্টোরেজ।

Image Source: www.startech.com.bd

এক নজরে Acer Aspire A315-51-এর স্পেসিফিকেশন:

  • Intel core i3-7130U Processor (3M Cache, 2.70 GHz)
  • 4 GB DDR4 Ram
  • 1 TB HDD
  • 15.6’’ HD (1366*768) resolution

 বাজার মূল্য: ৩৪,৫০০~৩৬,০০০ টাকা।

৪) Lenovo Ideapad D330 (Celeron Dual Core):

লেনোভো ব্যান্ডের মধ্যে আরো সাশ্রয়ী দামে ল্যাপটপ চাইলে এই ল্যাপটপটি থাকতে পারে পছন্দের তালিকায়। নরমাল ইউজের জন্য ল্যাপটপটির পারফরমেন্স অনেক ভালো। ১০.১’’ ইঞ্চি ডিসপ্লে যেটি একইসাথে টাচ স্ক্রিনও।

মাত্র ৫৯৪ গ্রামের কাছাকাছি ওজনের ল্যাপটপটি ব্যবহারকারীকে দিবে পোর্টেবিলিটি। কিন্তু এটিতে থাকছে ইন্টেলের পুরাতন সেলেরন প্রসেসর। যদিও ৪ জিবি  ডিডিআর র‍্যাম ল্যাপটপটিকে স্পেশাল প্রোটেকটিভ ফিনিশিং দিয়েছে। সাথে ইন্টিগ্রেটেড গ্রাফিক্স, স্ট্যান্ডার্ড কীবোর্ড, ডলবি প্রিমিয়াম অডিও স্পিকার মিডিয়া ক্যাটাগরি বেশ ভালোভাবেই ফুলফিল করবে। 

Image Source: www.startech.com.bd

এক নজরে Lenovo Ideapad D330-এর স্পেসিফিকেশন:

  • Intel Celeron N40000 Processor (4M Cache, 1.10 GHz up to 2.60 GHz)
  • 4 GB DDR4L
  • 64 GB eMMC storage
  • Intel integrated Graphics
  • 10.1’’ FHD (1920*1200), Touchscreen

বাজার মূল্য: ৩২,০০০~৩৪,৫০০ টাকা।

৫) HP 15-da0021tx (8th Gen Core i5):

একদম কাটায় কাটায় যদি বাজেট ৫০ হাজার করা যায় আর যদি ৮ম প্রজন্মের Core i5 প্রসেসরই ব্যবহারের লক্ষ্য থেকে থাকে, তাহলে এই ল্যাপটপটি হতে পারে প্রথম পছন্দ। এর ১৫.৬’’ ডিসপ্লের সাথে B&O Play, ডুয়েল স্পিকার, এইচপি অডিও বুস্ট মুভি দেখার জন্য এক দারুণ এক্সপিরিয়েন্স দেয়।

এছাড়াও ফুল সাইজ আইল্যান্ড স্টাইল কীবোর্ড সহজেই এনে দিবে টাইপিং ফ্লেক্সিবিলিটি। সবচেয়ে আকর্ষণীয় স্পেসিফিকেশন এই মূল্যে ডেডিকেটেড NVIDIA GeForce MX110 গ্রাফিক্স পাওয়া, যা ল্যাপটপের গেমিং পারফরমেন্সকে অনেকটাই স্মুথ করে তোলে।

Image Source: www.startech.com.bd

এক নজরে HP 15-da0021tx-এর স্পেসিফিকেশন:

  • Intel Core i5-8250U (1.6 GHz up to 3.4 GHz with Intel Turbo Boost Technology ,6M cache,4 cores)
  • 4 GB DDR4-2400 SDRAM
  • 1 TB 5400 rpm SATA
  • 15.6’’ diagonal HD SVA BrightView micro-edge WLED-backlit display (1366*768)
  • NVIDIA GeFoorce MX 110(2 GB DDR3 dedicated)
  • 3-cell, 41 Wh Li-ion Battery

বাজার মূল্য: ৪৯,০০০~৫০,৫০০ টাকা।

সাশ্রয়ী বা বাজেট ফ্রেন্ডলি বলতে মোটামুটিভাবে ৩০,০০০~৫০,০০০ রেঞ্জের মধ্যে থাকা ল্যাপটপগুলো বুঝায়, যাতে ক্যাজুয়াল ইউজ বা স্টুডেন্ট লাইফের যাবতীয় কাজ করে ফেলা যায় সহজেই। যেখানে ঘুরেফিরে intel core i3 অথবা core i5, ৪ জিবি র‍্যাম ও ১ টিবি স্টোরেজ পাওয়া সম্ভব।

সাধারণ ব্যবহার, শিক্ষা সংক্রান্ত টুলস ব্যবহার করার জন্য এ ল্যাপটপগুলো যথেষ্ট। তাছাড়া ল্যাপটপের পারফরম্যান্স দ্রুতগতির করার জন্য আলাদা করে SSD লাগিয়ে নেওয়ার সুযোগ তো থাকছেই। এছাড়াও বাড়তি RAM যুক্ত করে নিয়ে বাজেট ল্যাপটপগুলোকে আরো দ্রুতগতিসম্পন্ন করে ফেলা যায় সহজেই।

ফিচার ছবি- amazon.com

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *