যারা স্মার্ট ঘড়ির ভক্ত তবে বেশি মূল্য হওয়ার জন্য ব্যবহার করতে পারছেন না তারা তুলনামূলকভাবে কম খরচে শাওমির আমেজ ফিট ভারজ ব্যবহার করতে পারেন। বাজারে অ্যাপলের স্মার্ট ঘড়িগুলো এখনো পর্যন্ত অধিক জনপ্রিয়, তবে তা ক্রয় করতে হলে আপনার গুনতে হবে ৩০ হাজারেরও বেশি টাকা। এস্থলে শাওমির এই ঘড়িটি  পেয়ে যাবেন মাত্র ১২ হাজার টাকার মধ্যেই।

শাওমির এই নতুন সংস্করণটি এর আগের মডেলসমূহ হতে সম্পূর্ণ ভিন্ন এবং এর মাঝে ব্যাপক পরিবর্তন আনা হয়েছে। যেমন স্ট্রেপ থেকে শুরু করে ডিসপ্লে এবং ডিসপ্লের রঙ সবকিছুতে আমূল পরিবর্তন আনা হয়েছে।

আমেজ ফিট ভারজ; Image Source: amazfit.com

                                  

এর ভেতর যা পাবেন

প্রথমত, ঘড়ির বক্সটি বেশ আকর্ষণীয়। এটি খুললেই পেয়ে যাবেন আপনার কাঙ্খিত আমেজ ফিট ভারজ স্মার্ট ঘড়িটি। কালোর মধ্যে নিচের অংশটুকু হালকা সাদা এবং এর ডায়ালের চারপাশে রয়েছে চারটি কমলা রঙের দাগ। পুরো ঘড়িটিতে একটিই বাটন বিদ্যমান সেটিও কমলা রঙের। বক্সটি খুললে দেখতে পাবেন বাক্সের ভেতর দুইটি জায়গা। একটিতে থাকবে চার্জার ও অপরটিতে থাকবে নির্দেশিকা বই যা চাইনিজ ভাষায় লেখা। চার্জারটি গোলাকার, এর মধ্যে খাজের মতো যায়গা আছে। এই খাজে ঘড়িটি বসিয়ে চার্জ করা হয়।

দেখতে যেমন  

কালোর মধ্যে হালকা সাদা ও একটু কমলার মিশ্রণে তৈরি ঘড়িটি বেশ আকর্ষণীয়। এর স্ট্রেপ তথা বেল্টটি সিলিকনের উপাদানে তৈরি যা ঘড়ির সাথে একাকার হয়ে মিশে গিয়েছে। স্ট্রেপটি কোনোভাবেই মনে হবে না যে এটি ঘড়ির বাইরের একটি অংশ। ঘড়িটিতে একটি কমলা রঙের বাটন রয়েছে। ঘড়ির উলটো পাশে রয়েছে চার্জের জন্য চারটি দাগ, তাছাড়া রয়েছে হার্টবিট সেন্সর। এছাড়াও রয়েছে মাইক্রোফোনের ব্যবস্থা। ঘড়িটির দেহ প্লাস্টিকের তৈরি।

বৈশিষ্ঠ্য

গোলাকার আকৃতির ঘড়িটি প্লাস্টিকের তৈরি এবং এটি চারটি রঙের মধ্যে পাওয়া যায়। যা হল, কার্বন গ্রে, কালো, নীল এবং সাদা। ঘড়িটির কেসের পরিমাপ হলো ৪.৩০/৪.৩০/১.২৬ সেন্টিমিটার। ওজন ৪৬ গ্রাম, আইওপি ৬৮, জল-রোধ ক্ষমতা হল ১ মিটারের বা ৩.৩ ফুট গভীরতার জন্য যা প্রায় ৩০ মিনিট পর্যন্ত এই জল-নিরোধ ক্ষমতা দিবে।

আমেজ ফিট ভারজ আপডেট নেয়ার পর; Image Source: zdnet.com

 ডিসপ্লে

এমোলেড ডিসপ্লে, স্ক্রিনের পরিমাপ ১.৩ ইঞ্চি এবং স্ক্রিন রেজুলেশন ৩৬০/৩৬০ পিক্সেল। এর গ্লাস বেশ উন্নত মানের, চাইলে কেউ আলাদা ভাবে গ্লাসটি নিরাপদে রাখার জন্য গ্লাস প্রটেক্টর লাগিয়ে নিতে পারেন। এটিতে গরিলা গ্লাস দেয়া আছে। এই আমেজ ফিটে একসাথে অনেকগুলো ফাংশন চালানো যায়। স্ক্রিনের উপরে আঙ্গুল দিয়ে স্পর্শ করে একপাশ হতে অপর পাশে আঙ্গুল দিয়ে সরালেই যাবতীয় অপশনগুলো ছোখের সামনে ওঠে আসবে।

এর সিপিইউ হল ১.২ গিগাহার্জ, র‍্যাম ৫১২, অভ্যন্তরীণ মেমোরি ৪ জিবি যার মধ্যে ১.৯ জিবি আলাদাভাবে ব্যবহার করার জন্য খালি থাকবে। তবে আলাদা মেমোরি কার্ড ব্যবহার করার কোন ব্যবস্থা নেই।

ব্যবহারকারীর কাজের পরিমাপ

ব্যবহারকারী কতটুকু দূরত্ব অতিক্রম করেছে এই হিসাব ঘড়িতে পাওয়া যাবে। সাধারনত যেকোনো স্মার্ট ঘড়িতেই এসব সুযোগ সুবিধা দেওয়া থাকে। স্মার্ট ব্যান্ড থেকে শুরু করে যেকোনো ঘড়িতে এই সুবিধা গুলো থাকে। এছাড়াও আরো অনেক কিছু পাওয়া যাবে এই ঘড়িগুলোতে যেমন- হার্টরেট জানা যাবে, ব্যবহারকারী দৈনিক কত পদক্ষেপ নিয়েছে এগুলো জানা যাবে, শারীরিক ব্যায়ামে কতটুকু শক্তি বা ক্যালোরি ক্ষয় হয়েছে তা জানা যাবে।

আরো কিছু সুবিধা

সাদা বর্ণের আমেজ ফিট ভারজ; Image Source: geekbuying.com

ব্লুটুথ ৪.০, সাথে জিপিএস ব্যবস্থাও রয়েছে এই ঘড়িতে। ওয়াই-ফাই ও বেতারের ব্যবস্থাও রয়েছে। ঘড়িটির ওয়ালপেপার পরিবর্তন যোগ্য। চাইলেই কেউ নিজের পছন্দ অনুযায়ী পরিবর্তন করে নিতে পারবে। ঘড়িটিতে ভয়েস নির্দেশনা কাজ করে। রয়েছে অ্যাপল সিরির মতো ব্যক্তিগত সহায়ক। শাওমি এএল(XIO AL), স্মার্ট ফোন এন্ড্রয়েইড ৪.৪+ ও আইওএস ৯.০+ এর সাথে এটিকে যুক্ত করা যাবে। যেই এপ্লিকেশনের সহায়তায় ব্যবহারকারীর যাবতীয় সকল সুযোগ সুবিধা ভোগ করতে পারবে তা হল মি ফিট এপ্লিকেশন। এটি গুগোল প্লে স্টোরে পাওয়া যাবে। প্লে স্টোর হতে ডাউনলোড করে ইন্সটল করলেই ঘড়িটি আপনার ব্যবহার করার জন্য প্রস্তুত হয়ে যাবে।

ব্যবহারকারীর যেকোনো কাজের জন্যে ঘড়িটি বার্তা দিবে। সেটি ফোনে এসএমএস এর জন্য, মেইল এর জন্য, ফোন আসলে। তাছাড়া ক্যালেন্ডার রিমাইন্ডার ও আবহাওয়া বার্তাও দিবে।

এটিতে তড়িৎ মিটার, হার্টরেট পরিমাপক, বাতি ও কম্পন ক্ষমতা রয়েছে। স্পিকারের মাধ্যমে কোনো বার্তা আসলে শব্দ শুনতে পাওয়া যাবে। তাছাড়া মাইক্রোফোনে কথা বলা যাবে। এটিতে বেশ চমৎকার ব্লুটুথ ভয়েস কল সহায়তা রয়েছে, বাসার অয়াই আই বাতি, দেয়ালের সকেট, শীতাতপ যন্ত্র নিয়ন্ত্রণ, স্মার্ট রবটিক রাইস কুকার এছাএসব কিছু নিয়ন্ত্রণ করা যাবে।

ব্যাটারি

৩৯০ এমএএইচ এর ব্যাটারি বিদ্যমান, এক চার্জে ব্যাটারি যাবে পাঁচ দিনের মত। চার্জ করতে হলে কোন তার ব্যবস্থার প্রয়োজন নেই। এটি সম্পূর্ণ তারবিহীন ব্যবস্থায় চার্জ হয়।

কীভাবে ব্যবহার করবেন

প্রথমে আমেজ ফিট ঘড়িটির পাশে যে কমলা রঙের বাটন রয়েছে সেটি চেপে ধরে রাখতে হবে। তারপর ঘড়িটি চালু হবে। তবে এটি চালু হতে প্রথমে কিছু সময় নিবে। অন্যান্য স্মার্ট ঘড়ি চালাবার জন্য এখানেও একটি মি ফিট অ্যাপ ডাউনলোড করে ইন্সটল করে নিতে হবে তারপর ঐ অ্যাপের সাথে ঘড়িটির সংযোগ করাতে হবে। সংযোগ করানোর পর একটি আপডেট আসবে। প্রথমে ঘড়িটির ভাষা চাইনিজ থাকে যেমন টা শাওমির অন্যনান্য স্মার্ট ঘড়িতেও বিদ্যমান থাকে। অ্যাপের সাথে সংযোগ করার পর এবং আপডেট নেয়ার পর ভাষা চাইনিজ থেকে ইংরেজিতে রুপান্তরিত হয়ে যাবে। তারপর ব্যবহারকারী খুব সহজেই এর যাবতীয় সুবিধাবলি ব্যবহার করতে সক্ষম হবে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *